সোমবার ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ
সোমবার ২২শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

নড়াইলে মধুমতি নদীতে মাছ ধরতে গিয়ে নিখোঁজ যুবক মুসা বিশ্বাসের সন্ধান মেলেনি

আজকের খবর। ব্রেকিং নিউজে।

শেখ মাসুদ পারভেজ শামীম (নড়াইল):

নড়াইলের লোহাগড়ায় মধুমতি নদীতে ডুব দিয়ে মাছ ধরতে গিয়ে এক যুবক নিখোঁজ রয়েছেন। ২৪ ঘণ্টা পার হলেও নিখোঁজ যুবকের সন্ধান মেলেনি। শুক্রবার (২৭ জানুয়ারি) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত উদ্ধার অভিযানে চালায় খুলনা থেকে আসা ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি দল।
নিখোঁজ মুসা বিশ্বাস (৩২) লোহাগড়া উপজেলার ঘাঘা মধ্যপাড়া গ্রামের নবীর বিশ্বাসের ছেলে। এদিকে নিখোঁজের পর মধুমতি নদীর পাড়ে শত শত মানুষ ও নিখোঁজের আত্মীয়-স্বজনদের আহাজারিতে পরিবেশ ভারি হয়ে পড়ে। স্বজনদের দাবি জীবিত না হোক অন্তত লাশ পাওয়া গেলে তাকে দাফন করতে পারবেন।
এ বিষয়ে নড়াইল ফায়ার সার্ভিসের উপ-সহকারী পরিচালক মো.মাহাবুব আলম বলেন, ডুবুরি দলের দিনব্যাপী উদ্ধার অভিযানে নিখোঁজের কোনো সন্ধান পাওয়া যায়নি।
নদীতে অনেক স্রোত থাকায় আমরা ধারণা করছি লাশ অন্যত্র চলে গেছে। তিনি আরও বলেন,শীতের সময় সাধারণত লাশ ৪৮ থেকে ৭২ ঘণ্টা পর ভেসে ওঠে।
আমরা ধারণা করছি লাশ ভেসে উঠবে। তাই আজ ডুবুরি দলের উদ্ধার অভিযান শেষ করা হয়েছে। শুধু ট্রলারে করে টহল টিমের অভিযান অব্যাহত থাকবে। আশা করছি তার লাশ ভেসে উঠবে। উল্লেখ্য,বৃহস্পতিবার (২৬ জানুয়ারি) দুপুরে লোহাগড়া উপজেলার ঘাঘা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের পাশে মধুমতি নদীতে ওই গ্রামের মো.নবীর বিশ্বাসের ছেলে মো. মুসা বিশ্বাস ও একই গ্রামের স্বাধীন মোল্যার ছেলে মোহাম্মদ নাদিম মোল্যা দুজনে নদীতে ডুব দিয়ে মাছ ধরতে যায়। পরে নাদিম মাছ ধরে উপরে উঠে আসলেও মুসা আর ফিরে আসেনি। পরে স্থানীয়’রা তাকে অনেক খোঁজাখুঁজি করেও না পেয়ে লোহাগড়া ফায়ার সার্ভিসকে খবর দেয়। খবর পেয়ে ফায়ার সার্ভিসের একটি টিম ঘটনাস্থলে গিয়ে ঘটনার সত্যতা যাচাই করে খুলনা ডুবরি দলকে খবর দেয়। খুলনা থেকে হুমায়ুন কবিরের নেতৃত্বে একদল ডুবরি ওইদিন সন্ধ্যায় ঘণ্টাব্যাপী চেষ্টা করে সফল না হতে পেরে উদ্ধার অভিযান স্থগিত করেন।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *