শনিবার ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ
শনিবার ১৩ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

ঈশ্বরদীতে আসলেন রেলমন্ত্রী, জামাই বরন করলেন এমপি

মোঃ আব্দুস সালাম গাজীপুর প্রতিনিধি :

বাংলাদেশ পশ্চিমাঞ্চল রেলপথ মন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন ও তার সহধর্মিণী শাম্মি আক্তার মনিকে ফুলের তোড়া ও সোনার আংটি পরিয়ে জামাই বরন করেছেন পাবনা-৪ আসনের(ঈশ্বরদী-আটঘরিয়া) মাননীয় সংসদ সদস্য বীর মুক্তিযোদ্ধা আলহাজ্ব নুরুজ্জামান বিশ্বাস।

বৃহস্পতিবার(২৩ ফেব্রুয়ারি)দিবাগত রাত ১১টার সময় নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপির নিজ বাসভবনের সামনে দলীয় নেতাকর্মী ও পরিবারের সদস্যদের উপস্থিতিতে ফুলেল সংবর্ধনা দিয়ে এ বরন অনুষ্ঠান করেছেন।

তারপর মেয়ে-জামাই কে নিয়ে কেক কেটে আনন্দঘন মুহুর্তের সুচনা করেন এমপি সহ পরিবারের সবাই। এরপর রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন ও তার সহধর্মিণী শাম্মি আকতার মনিকে ফুলের মালা পরিয়ে কূশল বিনিময় করে একসাথে পরিবার নিয়ে রাতে খাওয়া-দাওয়া সম্পন্ন করে ঈশ্বরদী-আটঘরিয়ার নানা উন্নয়ন মুলক কর্মকান্ড ও সার্বিক সহযোগিতা প্রত্যাশা ব্যাক্ত করেন এমপি নুরুজ্জামান বিশ্বাস।

আঞ্চলিক রীতি অনুযায়ী মেয়ে-জামাই কে পাঞ্জাবী ও ঈশ্বরদীর ঐতিহ্যবাহী বেনারসী পল্লীর বেনারসী শাড়ি উপহার দিয়ে বরন অনুষ্ঠানের সমাপ্ত ঘোষনা করা হয়।

সংবর্ধনা ও বরন অনুষ্ঠানের আয়োজন দেখে রেলপথ মন্ত্রী (জামাই) নুরুল ইসলাম সুজন বলেন, ঈশ্বরদীতে রেলের নতুন প্রকল্প উদ্বোধনে এসে এভাবে হটাৎ করে জামাই বরন হবে জানা ছিলনা। অনেকদিন পর এমন আদর আর আনন্দঘন মুহুর্ত পেলাম। আমার বেশ ভালো লাগছে শশুর নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি মহোদয়ের এক অন্যতম আয়োজন দেখে।

নুরুজ্জামান বিশ্বাস এমপি বলেন, আজ ঈশ্বরদী বাসীর একটি আনন্দের দিন। বাংলাদেশ রেলওয়ের নবনির্মিত ফুটওভার ব্রিজ উদ্ধোধন করেছেন রেলমন্ত্রী নুরুল ইসলাম সুজন। শাম্মি আক্তার মনিকে অনেক আগে থেকে মেয়ে বলে ডাকি আর সেই মেয়ে তার জামাই এর সাথে ঈশ্বরদী এসেছে ফুটওভার ব্রিজ উদ্ধোধনী অনুষ্ঠানে। আনন্দ কে একটু বাড়ানোর জন্য এমন জামাই বরেনের চিন্তা-ভাবনা। জামাই মেয়ের জন্য সকলের কাছে দোয়া চেয়েছেন এমপি মহোদয়।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন রেলপথ মন্ত্রনালয় সংসদীয় কমিটির সদস্য নাদিরা ইয়াসমিন জলি এমপি, উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক আবুল কালাম আজাদ মিন্টু, পৌর আওয়ামীলীগের সাধারন সম্পাদক ও পৌরসভার মেয়র ইসাহক আলী মালিথা, উপজেলা পরিষদের ভাইস চেয়ারম্যান আব্দুস সালাম খান ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান আতিয়া ফেরদৌস কাকলী সহ রেলওয়ে কর্মকর্তাবৃন্দ।

উল্লেখ্য, উল্লেখ্য, ঈশ্বরদী জংশন স্টেশনের পুরাতন ফুটওভার ব্রিজের পাশে ফুটওভার ব্রিজ পুননির্মাণ করা হয়। ৩ কোটি ১৭লাখ টাকা ব্যয়ে নির্মিত এ ব্রিজ ৪৪০ ফুট দৈর্ঘ্য, ১০ ফুট চওড়া ও ২১ ফুট উঁচু। এছাড়াও ঈশ্বরদী রেলওয়ে জংসন স্টেশনে আধুনিক পাবলিক টয়লেট নির্মাণের ভিত্তি প্রস্তর স্থাপন করা হয়। ওয়াটার কি এইড বাংলাদেশ নামে একটি প্রতিষ্ঠান আধুনিক এ পাবলিক টয়লেট নির্মাণ কাজ করবে। আধুনিক এ টয়লেটে মোট ৪টি পুরুষ, ৩টি প্রশ্বাবখানা, একটি মাতৃদুদ্ধ পান ও শিশু পরিচর্যা চেম্বার, একটি টয়লেট চেম্বার, একটি গোসল খানা, ২টি নারী টয়লেট, ২টি পানীয় জলের ব্যবস্থা ও একটি এটিএম বুথের ব্যবস্থা থাকবে। মুলত এসকল প্রকল্প উদ্ধোধনের জন্য ঈশ্বরদী আসেন রেলপথ মন্ত্রী ও তার সহধর্মিণী।

Spread the love