বৃহস্পতিবার ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ
বৃহস্পতিবার ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

কালীগঞ্জে সার ও বীজ বিতণর

মো.হাসমত উল্লাহ, লালমনিরহাট।।


লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় চলতি মৌসুমে বাম্পার ফলনের স্বপ্ন দেখছেন কৃষকেরা। গ্রাম বাংলার কৃষকরা ভালো ফলনের আশায়। উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে ২০২৩-২৪ অর্থ বছরে রবি মৌসুমে কৃষি প্রণোদনা কর্মসূচীর ফসল ভিত্তিক বীজ বিতারণ। ৫২১০ জন কৃষক কৃষি অফিস থেকে বীজ ও সার সংগ্রহ করেন ।

ফসলের নাম গম ৯০০,ভূট্টা ১১০০,সরিষা ৩০০০,চিনাবাদাম ৭০,পেঁয়াজ ১১০,মুগডাল ৩০,সর্ব মোট ৫২১০জন।ভুট্রা প্রতি জন কৃষক পেয়েছেন ২০কেজি ডি এ পি সার ১০কেজি এম ও পি মোট৩০কেজি, ভুট্টা বীজ ২কেজী। গম প্রতি জন কৃষক পেয়েছেন ১০কেজি ডি এ পি সার ১০কেজি এম ও পি মোট২০কেজি, গম বীজ ২০কেজী। সরিষা প্রতি জন কৃষক পেয়েছেন ১০কেজি ডি এ পি সার ১০কেজি এম ও পি মোট২০কেজি, সরিষা বীজ ১কেজী। চিনাবাদাম প্রতি জন কৃষক পেয়েছেন ১০কেজি ডি এ পি সার ৫কেজি এম ও পি মোট ১৫কেজি, চিনাবাদাম বীজ ১০কেজী। পিয়াচ প্রতি জন কৃষক পেয়েছেন ১০কেজি ডি এ পি সার ১০কেজি এম ও পি মোট২০কেজি, পিয়াচ বীজ ১কেজী। মুগডাল প্রতি জন কৃষক পেয়েছেন ১০কেজি ডি এ পি সার ৫কেজি এম ও পি মোট ১৫কেজি, মুগডাল বীজ ৫কেজী।

উপজেলা কৃষি কর্মকর্তা মাহমুদা খাতুন,বলেন ভালো বীজে ভালো ফলন হয়। এবং রোগ বালাই কম হয়।ভালো জায়গাতে বীজ বপন করেন। অনুকূল আবহাওয়া থাকালে এবং নিবিড় পরিচর্যাসহ যথা সময়ে জমিতে সার কীটনাশক দিলে এবার লক্ষ মাত্রা পূরন হবে বলে আশা করছি। বীজ ও সার সংগ্রহ কারি এক কৃষক এর সাথে কথা বলে জানাযায় গত বছর অফিসের বীজ নিয়ে যে ফলন হয়েছে এবার অনুকূল আবহাওয়া থাকালে এবারো ভালো ফলনের আশকরছি। তাই সকল কৃষক ভাইদের বলি সবাই ভালো বীজ দিয়ে কৃষি আবাদ করবেন।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *