বৃহস্পতিবার ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ
বৃহস্পতিবার ২৫শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

দ্বাদশ নির্বাচনে মনোনয়ন সংগ্রহ করেন মাহবুবুজ্জামান আহমেদ,

মো.হাসমত উল্লাহ,লালমনিরহাট।।

দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লালমনিরহাট ২ আসন(কালীগঞ্জ-আদিতমারী) মনোনয়ন সংগ্রহ করেন দীর্ঘ ৪৩ বছরের রাজনৈতিক জীবন, ৩০ বছরেরও অধিক সময় ধরে স্থানীয় সরকারের অধীনে জন প্রতিনিধিত্বের (ইউনিয়ন পরিষদ ও উপজেলা পরিষদ) পর, প্রথবারের মত দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ এর মনোনয়ন সংগ্রহ করলেন – কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদ।

মাহবুবুজ্জামান আহমেদ। লালমনিরহাট জেলার কালীগঞ্জ উপজেলার কাশিরাম গ্রামে জন্ম। ১৯৭৭ সালে ছাত্রলীগের রাজনীতির মধ্যদিয়ে আওয়ামী লীগের রাজনীতিতে হাতে ঘটে ঘটে তার। পিতা মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক মরহুম সাংসদ করিম উদ্দিন আহমেদ। মাহবুবুজ্জামান আহমেদ লালমনিরহাট জেলা আওয়ামী লীগের সহ সভাপতি এবং কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ২ বারের সফল চেয়ারম্যান তিনি। এর আগে তুষভান্ডার ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে জয়লাভ করে তিনি ইউপি চেয়ারম্যান ও ছিলেন। জীবনের প্রায় ৩০ বছরের অধিক সময় ধরে স্থানীয় সরকার মন্ত্রণালয়ের আওতায় ইউপি ও উপজেলা সিয়ামেন পদে তিনি জনপ্রতিনিধিত্ব করে আসছেন। বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের তৃণমূল পর্যায়ের একজন দক্ষ সংগঠন হিসাবে জননেত্রী শেখ হাসিনার ভীষণ ২০৪১ ভার্সনে কাজ করে যাচ্ছেন।

মাহবুবুজ্জামান আহমেদ আসন্ন দ্বাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে লালমনিরহাট ২ আসন ( কালিগঞ্জ আদিতমারী) এবার বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের একজন মনোনয়ন প্রত্যাশী হিসেবে আজ১৯ শে নভেম্বর তিনি সংগ্রহ করেছেন বলে তার পারিবারিক সূত্রে জানা গেছে। মাহবুবুজ্জামান আহমেদ তার ৩০ বছরের জনপ্রতিনিধি থাকাকালে বিভিন্ন সময়ে জেলা পর্যায়ে ও বিভাগীয় পর্যায়ে চেয়ারম্যান হিসেবে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জন করেছেন। তিনি মনে করেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার যদি তাকে দলীয় প্রতিক বা মনোনয়ন দেন তাহলে তাহলে সুনিশ্চিত এ আসনটি বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের গড়ে উঠবে।

তৃণমূল আওয়ামী লীগের বেশ কয়েকজন নাম প্রকাশ্যে অনিচ্ছুক ব্যক্তি বলেন, লালমনিরহাট ২ আসনের এবার ভোটের হিসাব অনেকটাই জটিল। এখানে এবার তিন থেকে চার জন পাঁচি মান্নানপত্র সংগ্রহ করেছেন। তার উপর রয়েছে দলীয় কোন্দল। সব মিলে এবারে যদি মাহবুবুজ্জামান আহমেদকে দলীয় সভানেত্রী শেখ হাসিনা বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দেন তাহলে আসনটি সুনিশ্চিতভাবে নৌকা বিজয়ী হবে বলে মন্তব্য করেন অনেকে।

কালীগঞ্জ উপজেলা পরিষদের ২ বারের সফল চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী যদি আমাকে দলীয় মনোনয়ন দেন তাহলে আমি বিজয় লাভ করব বলে বিশ্বাস করি। কারণ আমি তৃণমূলের রাজনীতি করে আসছি।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *