মঙ্গলবার ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ
সর্বশেষ
মঙ্গলবার ২৩শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ

যশোরে নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে আত্মহত্যা

আজকের খবর। ব্রেকিং নিউজে।

কাজী মোহাম্মদ আলী, অভয়নগরঃ

যশোরের অভয়নগরে সুমাইয়া বেগম (১৯) নামের এক গৃহবধূ ট্রেনের সামনে ঝাঁপদিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

আজ (৪ ফেব্রুয়ারি) শনিবার বেলা আনুমানিক ১২ টায় রাজঘাট রেলক্রসিং-এর পাশে খুলনাগামী বেতনা ট্রেনের সামনে ঝাঁপ দিয়ে এ আত্মহত্যার ঘটনা ঘটে।

নিহত গৃহবধু উপজেলার বাঘুটিয়া গ্রামের রকি শেখের স্ত্রী এবং খুলনা জেলার ফুলতলা উপজেলার বেজেরডাঙা গ্রামের মহিরুল ইসলামের মেয়ে।

স্বামীর বাড়ির লোকজনের নির্যাতন সহ্য করতে না পেরে ওই গৃহবধু আত্মহত্যা করেছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
নিহতের বাবা মহিরুল ইসলাম জানান, তিন বৎসর পুর্বে রকির সাথে সুমাইয়ার বিয়ে হয়। তাদের সংসারে দুই বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে। বিয়ের পর বিভিন্ন সময়ে আমার মেয়েকে যৌতুকের জন্য চাপ দেয় রকি ও তার পরিবার। আমি তাদের এক লক্ষ ৭০ হাজার টাকা দিয়েছি। তারপরও তারা আমার মেয়েকে নির্যাতন করতো। গত বছর আমার মেয়েকে রকি হত্যা করার চেষ্টাও করেছিল। আমি সংবাদ পেয়ে মেয়েকে আমার বাড়িতে নিয়ে আসি এবং মামলা করি। পরে সুমাইয়ার শ্বশুরবাড়ির এলাকার লোকজন আমার বাড়ি এসে আলোচনা করে মামলা মিমাংসা করে মেয়েকে আবার নিয়ে যায়। এরপর থেকে ওর স্বামী ও তার পরিবারের লোকজন অব্যাহতভাবে নির্যাতন চালিয়ে যেতে থাকে। নির্যাতন সইতে না পেরে সে ট্রেনে কেটে আত্মহত্যা করেছে। সুমাইয়া আত্মহত্যা করার আগে আমার সাথে মোবাইলে কথা বলছিল। সেসময় সে শ্বশুরবাড়ির লোকজনের নির্যাতনের কথা বলছিল। আমি তাকে মোবাইলে বারবার শান্ত হওয়ার অনুরোধ করছিলাম। হঠাৎ ট্রেনের শব্দ শুনলাম এরপর সুমাইয়ার সারা শব্দ বন্ধ হয়ে যায়। একটুপরে জানতে পারি সে ট্রেনে ঝাঁপদিয়ে আত্মহত্যা করেছে।

এ বিষয়ে জানতে চাইলে, অভয়নগর থানার পুলিশ পরিদর্শক (তদন্ত) মিলন কুমার মন্ডল জানান, শুনেছি একজন গৃহবধূ ট্রেনের সামনে ঝাঁপদিয়ে আত্মহত্যা করেছে। কি কারনে আত্মহত্যা করেছে এখনই বলতে পারছি না। নিহতের পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেলে তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যাবস্থা গ্রহন করা হবে।

Spread the love

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *